আওয়ামী লীগের গলার কাঁটা অনুপ্রবেশকারীরা

আট বছরে ৬০ হাজারের বেশি জামায়াত-শিবির ও বিএনপির নেতা-কর্মী আওয়ামী লীগে ঢুকেছে ** তালিকা করার নির্দেশ শেখ হাসিনার

0
17
জামায়াত-শিবির-বিএনপি থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীরাই আওয়ামী লীগের গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনুপ্রবেশকারীদের দ্বারা সংঘটিত বেশ কিছু বিতর্কিত ঘটনায় দলকে বেকায়দায় পড়তে হয়েছে। সরকার ও দলকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতেই তারা আওয়ামী লীগে এসেছে—এমনটিই মনে করছেন দলের হাইকমান্ড। যে কারণে দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে অনুপ্রবেশকারীদের তালিকা তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগে কারা অনুপ্রবেশ করছে, কার মাধ্যমে দলে ঢুকেছে, তাদের একটা তালিকা তৈরি করে জমা দিন। গত ২১ জুলাই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় শেখ হাসিনা আরো বলেন, কিছু লোক আওয়ামী লীগ হয়ে দলে ঢুকে, তারপর অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটিয়ে দল ও সরকারকে বিব্রত করে। এদের বিষয়ে সাবধান থাকতে হবে।

 

অনুসন্ধানে জানা গেছে, গত ৮ বছরে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠাকিভাবে সারাদেশে জামায়াত-শিবির-বিএনপির ৬০ হাজারের বেশি তৃণমূল নেতাকর্মী ও সমর্থক আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। এক্ষেত্রে কেউ কেউ অতীতের পরিচয় গোপন করছেন, আবার অনেকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের ম্যানেজ করে বা অর্থের বিনিময়ে দলে ভিড়েছেন। শুধু তাই নয়, তৃণমূল আওয়ামী লীগের সম্মেলনে গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে নেতৃত্বও দিচ্ছেন জামায়াত-বিএনপি থেকে আসা এসব নেতাকর্মী। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পুলিশে নিয়োগসহ স্থানীয় গুরুত্বপূর্ণ সরকারি চাকরিতে স্থানীয় এমপিদের ছত্রছায়ায়  বিস্তারিত…